বিচ্ছেদের কারণ পরকীয়া

0
5
বিচ্ছেদের কারণ পরকীয়া

টেক জায়ান্ট মাইক্রোসফট এর মালিক যুক্তরাষ্ট্রের ধনকুবের বিল গেটস মেলিন্ডা গেটসের সম্প্রতি বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। আর এই বিচ্ছেদ নিয়ে শুরু হয়েছে নানা জল্পনা কল্পনা। বিচ্ছেদের কারণ নিয়েও আছে নানা ধরনের গল্প।হাজার হলেও গেটস দম্পতির বিচ্ছেদ বলে কথা। ধারণা করা হয় বিচ্ছেদের কারণ পরকীয়া।

তবে অবশেষে যে কারণে বিবাহ বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটেছে বিল গেটস মেলিন্ডার পরিবারে তার সম্পর্কে কিছুটা হলেও আচ করা গেছে। বিয়ের ২৭ বছর পর বিচ্ছেদের ঘোষণা দিয়েছেন বিল গেটস মেলিন্ডা। এটা পুরাতন খবর। তবে নতুন খবর হচ্ছে, তাদের দূরে সরে যাওয়ার মূল কারণ হচ্ছে নাকি পরকীয়া!! এতোদিন গসিপ মেলিন্ডা গেটসকে নিয়ে হলেও পিপল ডটকম ডেইলি মেইলের খবরে কিন্তু আঙ্গুলটা তোলা হয়েছে পৃথিবীর অন্যতম শীর্ষ ধনী বিল গেটসের দিকেই। দুটো সূত্র,তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মেলিন্ডা গেটসের সঙ্গে বিশেষ চুক্তি করে পুরানো প্রেমিকার সঙ্গে প্রতি বছর সৈকতে দীর্ঘ সময় কাটাতেন তিনি।

 ৬৫ বছর বয়সী গেটসের চেয়ে সেই বান্ধবী পাঁচ বছরের বড়। নাম অ্যান উইনব্ল্যাড। মেলিন্ডাকে গেটস যে বছর বিয়ে করেন, সেই ১৯৯৪ সালে অ্যানের সঙ্গে তার ব্রেকআপ হয়। বিল গেটস এই চুক্তির কথা নিজেও স্বীকার করেছেন বলে প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে। 

১৯৯৭ সালে টাইম ম্যাগাজিনের একটি সাক্ষাৎকারে চুক্তির বিস্তারিত তুলে ধরেন তিনি। ওই প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে,ঘটনার শুরু হয় ১৯৮৪ সালে যখন অ্যানের সঙ্গে প্রথম দেখা হয় গেটসের। তবে অ্যান এক সময় উপলব্ধি করেন, গেটস তার বিলিয়ন ডলার সাম্রাজ্য গড়তে দিনরাত কাজে ডুবে থাকেন। তাই তিনি বিলকে ছেড়ে অন্য কাউকে বিয়ে করে থিতু হতে চাচ্ছিলেন। গেটস সেটি বুঝতে পেরে নিজে থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নেন।

 টাইম ম্যাগাজিনকে বিল তখন বলেন, ‘মেলিন্ডাকে যখন বিয়ের কথা ভাবি, তখন অ্যানকে ডেকে অনুমতি নেই।মেলিন্ডার বিষয়ে অ্যান টাইম ম্যাগাজিনকে বলেন, ‘আমি বলেছিলাম, সে গেটসের জন্য উপযুক্ত। কারণ তার বুদ্ধিবৃত্তিক একটা শক্তি আছে।প্রতিবেদেন আরও বলা হয়েছে, শুধু অ্যানের কারণে মেলিন্ডার সঙ্গে গেটসের বিচ্ছেদ হয়েছে কি না, সে বিষয়ে নিশ্চিত কোনো তথ্য নেই।

 তবে গেটসের পুরোনো সাক্ষাৎকার থেকে বোঝা গেছে, কমপক্ষে এক দশক অ্যানের সঙ্গে তিনি সময় কাটাতে পারবেন, এমন চুক্তি ছিল মেলিন্ডার সঙ্গে। এই প্রতিবেদনের ভিত্তিতে বলা যায়, বিলিয়ন ডলারের এই বিবাহ বিচ্ছেদের কারণ খুজতে আরো কিছুদিন সরব থাকবে সংবাদ মাধ্যম সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলো।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here